গুগল কখনো এই ৫টি লেখা সার্চ করবেন না

অনলাইনে আপনার গোপনীয়তা রক্ষা করা কঠিন হতে পারে। আপনি যদি গুগল, বিং, ইয়াহু, বা অন্য কোনও সার্চ ইঞ্জিন ব্যবহার করেন যা আপনার আইপি ঠিকানা এবং সার্চ করা লেখা গুলি রেকর্ড করে। গুগল আপনার গুগল সার্চ এর ইতিহাসটি আপনার পরিচয় সম্পর্কিত আরও ডেটার সাথে একত্রিত করতে পারে এবং তাদেরকে একটি সম্পূর্ণ প্রোফাইলের সাথে সংযুক্ত করতে পারে যা সার্চ ইঞ্জিন এবং বিজ্ঞাপনদাতারা উভয়ই আপনি কে, আপনি কী আগ্রহী, এবং একটি ধারণা পেতে ব্যবহার করতে পারেন আপনি কেনার সর্বাধিক সম্ভাবনা এটি আপনাকে আপনার সমস্যাগুলি, আপনার আগ্রহগুলি এবং এমনকি গুগলের মতো একটি বড় সার্চ ইঞ্জিনের সাথে নিষ্ক্রিয় কৌতূহল থেকে জন্মেছে এমন সার্চ গুলি শেয়ার করে নেওয়ার বিষয়ে দু'বার চিন্তাভাবনা করা উচিত।





গুগল কখনো এই ৫টি লেখা সার্চ করবেন না
গুগল কখনো এই ৫টি লেখা সার্চ করবেন না
এটি সত্য নয় যে আপনি যা চান তার জন্য সার্চ করতে পারেন, আপনার ব্রাউজিংয়ের ইতিহাস মুছতে পারেন এবং আপনি কি করছেন গুগল সার্চ এ তা কেউ জানতে পারবে না। গুগল এ আপনি কি সার্চ করেন এবং সেই তথ্যটি কীভাবে ব্যবহার করে তা নির্দিষ্ট করে কীভাবে আপনার জন্য বিজ্ঞাপনগুলি টার্গেট করা যায় তা নির্ধারণ করতে সুতরাং এটি কেবল গুগলই নয় যা আপনি কি সার্চ করছেন তা জানে। গুগল যেমন তার গোপনীয়তা এবং শর্তাদি এফএকিউগুলিতে ব্যাখ্যা করে, "আপনি যখন গুগল কোনও সার্চ ফলাফলের উপর ক্লিক করেন, আপনার ওয়েব ব্রাউজারটি HTTP রেফারার হিসাবে গন্তব্য ওয়েবপৃষ্ঠায় সার্চের  ফলাফলের পৃষ্ঠার ইন্টারনেট ঠিকানা বা URL পাঠাতে পারে। অনুসন্ধান ফলাফল পৃষ্ঠার ইউআরএল কখনও কখনও আপনার প্রবেশ করা অনুসন্ধান কোয়েরি থাকতে পারে ”আপনি কোনও পৃষ্ঠার ইউআরএল টিতে পুরো প্রচুর দরকারী তথ্য ধারণ করে না।




এমনকি গুগল সার্চ প্রদর্শিত বিজ্ঞাপন গুলির জন্যও, গুগল বিজ্ঞাপনগুলি চয়ন করতে আপনি কি সার্চ করেছেন, আপনার অবস্থান এবং দিনের সময় সম্পর্কিত তথ্য ব্যবহার করে। এটি আপনার পূর্ববর্তী ওয়েব সার্চ গুলি, আপনার গুগল সার্চ ওয়েব ইতিহাস, গুগলের সাথে বিজ্ঞাপন দেওয়ার ওয়েবসাইট গুলির আপনার ইতিহাস, আপনার বয়স এবং লিঙ্গের মতো আপনার গুগল অ্যাকাউন্ট থেকে তথ্য এবং গুগলের বিজ্ঞাপন এবং অনুসন্ধানের ফলাফলগুলির সাথে আপনার পূর্ববর্তী মিথস্ক্রিয়াকেও বিবেচনা করে। এই সমস্ত বিষয় মাথায় রেখে, পাঁচটি জিনিস পড়ুন যা গুগল ব্যবহার করার সময় আপনাকে কখনও সার্চ করা উচিত নয়।

গুগল কখনো এই ৫টি লেখা সার্চ করবেন না





১. গুগল সার্চ এ কখনো কোনো ব্যাঙ্ক এর কাস্টমার কেয়ার নাম্বার সার্চ করবেন না। 

গুগলে অনেকগুলি ভুয়া অনলাইন ব্যাংকিং ওয়েবসাইট রয়েছে। যা আপনাকে ভুয়ো ওয়েবসাইট এ নিয়ে গিয়ে আপনার সাথে প্রতারণা করতে পারে এই জন্য আপনি কখনো আপনার ব্যাঙ্ক এর বিষয়ে কোনো কিছু ইন্টারনেট এ জানতে গুগল সার্চ করবেন না। অনলাইনে ইন্টানেটে আপনার ব্যাঙ্ক একাউন্ট এক্সেস করতে আপনি আপনার মোবাইল ব্রাউসার এ সরাসরি আপনার ব্যাঙ্ক এর অফিসিয়াল ওয়েবসাইট এর নাম টি নিজে লিখে খুলবেন। গুগল সার্চ করে নয়।

আরও আপনি কখনো কোনো ব্যাঙ্ক বা কোনো কোম্পানির নাম্বার গুগল সার্চ করবেন না।
আপনার যদি কখনো কোনো ব্যাঙ্ক বা কোম্পানির নাম্বার দরকার আপনি সেই ব্যাঙ্ক বা কোম্পানির অফিসিয়াল ওয়েবসাইট টি খুলে Contact Us  (যোগাযোগ) এ গিয়ে ওই খান থেকে নাম্বার নিয়ে কল অথবা ইমেইল করবেন। গুগল সার্চ করে কখনো কোনো কোনো ব্যাঙ্ক বা কোম্পানি কে ফোন করবেন না।
২.গুগল সার্চ এ কখনো কোনো এপপ্স বা সফটওয়্যার সার্চ করবেন না। 

আপনি যখন আপনার মোবাইল এ কোনো এপপ্স ডাউনলোড করবেন তো তখন আপনি যদি এপপ্স ডাউনলোড করার জন্য গুগল এ সার্চ করেন তো আপনার সামনে অনেক fake ভুয়ো এপপ্স আসতে পারে, আর আপনি যদি ভুল করে ওই ভুয়ো এপপ্স ডাউনলোড করে নেন তখন আপনার মোবাইল হ্যাক হতে পারে আর আপনার সমস্ত পার্সোনাল জিনিস লিক হতে পারে। এই জন্য আপনি কখনো আপনার মোবাইল কোনো এপপ্স ডাউনলোড করতে গুগল সার্চ করবেন না।

মোবাইল এ নুতন এপপ্স ডাউনলোড করতে আপনি আপনার এন্ড্রোইড মোবাইল গুগল প্লে স্টোরে ব্যবহার করে সব সময় নুতন এপপ্স মোবাইল ডাউনলোড করবেন।  প্লে স্টোরে ডাউনলোড করলেই এই নয় যে সব এপপ্স সঠিক প্লে স্টোরে fake ভুয়ো এপপ্স থাকে কিন্তু গুগল সার্চ এর তুলনায় অনেক কম।  এই জন্য যে কোনো নুতন এপপ্স মোবাইল এ খুললে আপনার দেখা দরকার এপপ্স টি যে পারমিশন নিচ্ছে এই পারমিশন গুলি কি এই এপপ্স টির কোনো দরকার আছে।

৩. গুগল সার্চ এ কখনো কোনো মেডিছিন (ওষুধ) এর বিষয়ে সার্চ করে ব্যবহার করবেন না। 

আমাদের বেশিরভাগই এটি করে  যদি নিজের জন্য নয় তবে কারও জন্য আমাদের মেডিছিন (ওষুধ) নেওয়া হয়। কোনও চিকিত্সককে দেখতে হবে কি না তা সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে আমরা গুগল এ বলা নিয়ম গুলি লক্ষণ করি এবং স্ব-নির্ণয় করি। আসলে, পিউ রেসিয়ার্চ জানিয়েছে যে ৭২ শতাংশ ইন্টারনেট ব্যবহারকারী স্বাস্থ্য সম্পর্কিত তথ্য অনলাইনে সার্চ করে।

এটি সম্পর্কে চিন্তা করুন: আপনার অসুস্থতার সম্ভাব্য কারণগুলির তালিকা সহ ডাক্তার অ্যাপয়েন্টমেন্টের জন্য আপনি কতবার এসেছেন?
তবে এই ধরণের অনুশীলনে একটি বড় সমস্যা রয়েছে। সমস্ত গুগল সার্চ এর ফলাফল বিশ্বাসযোগ্য নয়, যা কোনও কারণ ছাড়াই আতঙ্কিত হয়ে বিষয়গুলিকে আরও জটিল করে তুলতে পারে।

৪. গুগল সার্চ এ কখনো স্টক মার্কেট , নিজের পার্সোনাল ইনকাম, এ বিষয়ে সার্চ করবেন না।




গুগলে নিজের পার্সোনাল ইনকাম এবং স্টক মার্কেট সম্পর্কে গুরুতর পরামর্শ বা গাইড গুগল সার্চ করবেন না। স্বাস্থ্যের মতো, ব্যক্তিগত অর্থও সবার জন্য অনন্য। এমন একটি বিনিয়োগের পরিকল্পনা আর কখনও হতে পারে না যা সবাইকে ধনী করে তুলবে। সুতরাং, বিনিয়োগের সময় গুগল সার্চ এর ফলাফল থেকে পরামর্শ নেওয়া সঠিক নয়।

৫. গুগল সার্চ এ কখনো কোনো শপিং ওয়েবসাইট এর অফারস এর বিষয়ে সার্চ করবেন না। 

গুগল এর মধ্যে এমন অনেক ভুয়ো fake ওয়েবসাইট আছে যে দেখতে বতমানের টপ ওয়েবসাইট যেমন আমাজন, ফ্লিপকার্ট ইত্যাদি ওয়েবসাইট এর মতো হবো হু ওয়েবসাইট। কিন্তু এই ওয়েবসাইট গুলি শুধু দেখতে আমাজন , ফ্লিপকার্ট এর  মতো কিন্তু আমাজন ফ্লিপকার্ট এর অরজিনাল ওয়েবসাইট নয়। এই ভুয়ো fake ওয়েবসাইট গুলিতে আপনাকে অনেক কিছু খুবই কম দামে দেখতে পাবেন যেমন এখন একটি মোবাইল এর অরিজিনাল দাম ১৪,৯৯৯ টাকা আপনাকে এই একই ১৪,৯৯৯ টাকা দামের মোবাইল টি ভুয়ো fake ওয়েবসাইট তে ২,৯৯৯ টাকা দাম দেখাবে অফারস এ আপনি যদি ওই অফারস দেখে অনলাইনে মোবাইল অর্ডার করে পেমেন্ট করে দেন তো আপনি যে ২,৯৯৯ টাকা অনলাইনে এ পেমেন্ট করেছেন সেটাও আপনি পাবেন না।  আর আপনি কোনো মোবাইল ও পাবেন না।

এই জন্য কোনো শপিং ওয়েবসাইট এর অফারস গুগল সার্চ করবেন না। আপনি কোনো ওয়েবসাইট এর অফারস জানতে আপনি ওই ওয়েবসাইট এ অথবা ওই ওয়েবসাইট এর মোবাইল এপপ্স এ গিয়ে জানতে পারবেন।  গুগল সার্চ করে নয়।




সুতরাং আশা করি আপনি আজ এই তথ্যটি পছন্দ করেছেন এবং গুগল কখনো এই ৫টি লেখা সার্চ করবেন না। তা আপনি অবশ্যই জেনে গেছেন। আপনি যদি এই তথ্য পছন্দ করেন, দয়া করে পোস্টটি যতটা সম্ভব আপনার বন্ধুদের সাথে ভাগ করুন।