টেলিগ্রাম কি। টেলিগ্রাম একাউন্ট খোলার নিয়ম

টেলিগ্রাম এখন আমাদের পছন্দের যোগাযোগের উপায় হয়ে উঠেছে, যে কোনও সময় এবং যে কোনও জায়গায় আমাদের বন্ধুদের সাথে সংযোগ স্থাপনের সুযোগ দেয় টেলিগ্রাম। আর ফেসবুক ম্যাসেঞ্জার এবং হোয়াটসঅ্যাপ এগুলির মধ্যে সর্বাধিক বিখ্যাত, এমন একটি অ্যাপ্লিকেশন রয়েছে যা নাম টেলিগ্রাম সম্প্রতি বাজারে ব্যাহত হয়ে উঠেছে এবং সেগুলির মধ্যে সবচেয়ে সুরক্ষিত বলে দাবি করে। তাই আজকে আমরা এই পোস্ট এ জানবো টেলিগ্রাম কি এব টেলিগ্রাম একাউন্ট খোলার নিয়ম কি



টেলিগ্রাম একাউন্ট খোলার নিয়ম

টেলিগ্রাম কি




টেলিগ্রাম কি আপনি যদি না জানেন তাহলে জেনে নিন টেলিগ্রাম কি। টেলিগ্রাম হলো একটি হোয়াটসঅ্যাপ বা ফেসবুক ম্যাসেঞ্জারের মতো ইন্টারনেটে কাজ করে একটি ম্যাসেঞ্জার অ্যাপ্লিকেশন। টেলিগ্রাম এ অন্য ম্যাসেঞ্জার অ্যাপ্লিকেশন গুলির তোলনার বেশি সিকিউরিটি প্রদান করে যার ফলে আপনি যদি আপনি কারো সাথে চ্যাট করেন আপনার মেসেজে কেও পড়তে পারবে না। আপনার মেসেজ লিক হবে না।  আর টেলিগ্রাম এ একাউন্ট খোলা খুব সহজ আর টেলিগ্রাম ব্যবহার করার খবই সোজা। 

আর টেলিগ্রাম মধ্যে আপনি হোয়াটসঅ্যাপ  এর মতো ছবি , ভিডিও, ডকুমেন্ট , এবং যে কোনো ভিডিও মুভি শেয়ার করতে পারবেন।



আর টেলিগ্রাম এ হোয়াটসঅ্যাপ এর মতো ছবি , ভিডিও আপনার মোবাইলে মেমরি কার্ড লোড হয় না। এটি ফেসবুক  এর মতো টেলিগ্রাম এর ক্লাউড স্টোরেজ এ ছবি , ভিডিও লোড করে তাতে আপনার মোবাইল এর মেমরি ফুল হয় না আর আপনি টেলিগ্রাম এ মেসেজ যখন তখন যেখানে খুশি লগইন করে পুরোনো মেসেজ দেখতে পারবেন। 

টেলিগ্রাম কে আপনি গুগল ড্রাইভ এর মতন করে ব্যবহার করতে পারবেন। যেমন আপনার কোনো দরকারি ছবি , ভিডিও , ডকুমেন্ট যদি আপনি আপনার টেলিগ্রাম ক্লাউড স্টোরেজ এ যদি আপলোড করেন তাহলে আপনি আপনার আপলোড করা ছবি , ভিডিও যেখানে খুশি সেখান  আপনার টেলিগ্রাম একাউন্ট লগইন করে আপনি আপনার টেলিগ্রাম এর ক্লাউড স্টোরেজ এ রাখা ডকুমেন্ট একসেস করতে পারবেন। 

টেলিগ্রাফ কে আবিষ্কার করেন


আপনি যদি না জানেন টেলিগ্রাফ কে আবিষ্কার করেছিল তাহলে জেনে নিন টেলিগ্রাফ ১৪ আগস্ট ২০১৩ সালে নিকোলাই এবং পাভেল দুই ভাই মুলে আবিস্কার করেন।



টেলিগ্রাফ আবিষ্কার করেন - নিকোলাই (Nikolai) পাভেল (Pavel Durov)


টেলিগ্রাম একাউন্ট খোলার নিয়ম

তাহলে আপনি কি টেলিগ্রাম একাউন্ট খোলার জন্য প্রস্তুত? নতুন টেলিগ্রাম অ্যাকাউন্ট সেট আপ করতে আপনার যে পদক্ষেপগুলি অনুসরণ করতে হবে তা এখানে বলা হবে। তবে আপনি টেলিগ্রাম একাউন্ট তৈরি করার আগে একটি প্ল্যাটফর্ম নির্বাচন করুন কারণ টেলিগ্রামটি আপনি সব জায়গায় ব্যবহার করতে পারবেন যেমন - আপনার এন্ড্রোইড মোবাইলে টেলিগ্রাম ব্যবহার করতে পারবেন। কম্পিউটার , মাক বুক , আপেল ফোন এও ব্যবহার করতে পারবেন।  আজকে আমি আপনাকে আপনি আপনার মোবাইলে টেলিগ্রাম এপপ্স ব্যবহার করে কিভাবে একাউন্ট বানাবেন তা বলবো।



১. টেলিগ্রাম একাউন্ট আপনার মোবাইলে খুলতে সবার প্রথমে আপনার মোবাইলে টেলিগ্রাম এপপ্স ডাউনলোড করতে হবে

টেলিগ্রাম



২. টেলিগ্রাম ডাউনলোড করার পরে আপনি টেলিগ্রাম এপপ্স টি ওপেন করুন।


টেলিগ্রাম কি

৩. টেলিগ্রাম এপপ্স টি ওপেন করার পরে আপনি আপনার দেশের নাম সিলেক্ট করে মোবাইল নাম্বার দিন। 

টেলিগ্রাম একাউন্ট খোলার নিয়ম


৪. টেলিগ্রাম এ মোবাইল নাম্বার দেওয়ার পরে আপনার ওই টেলিগ্রাম এ দেওয়া মোবাইল নাম্বার এ একটি ভেরিফাকেশন মেসেজ আসবে ওই মেসেজে ৬টি নাম্বার থাকবে ওই ৬টি নাম্বার দিন। 

৫. ভেরিফাকেশন কোড টি দেওয়ার আপনি ফাস্ট নাম , লাস্ট নাম লিখুন। 

টেলিগ্রাম একাউন্ট খোলার নিয়ম


এখন আপনার টেলিগ্রাম একাউন্ট খোলা হয়ে গেছে। এখন আপনি আপনার মোবাইল সেভ করা নাম্বার এর মধ্যে যাদের টেলিগ্রাম একাউন্ট আছে তাদের কে মেসেজ করতে পারবেন। 



তাই বন্ধুরা, আশা করি আপনি আজ এই টেলিগ্রাম কি। টেলিগ্রাম একাউন্ট খোলার নিয়ম। এই ছোটো পোস্ট  টি পছন্দ করেছেন, যদি আপনার এই পোস্টটি ভাল লাগে তবে পোস্টটি যথাসম্ভব শেয়ার করুন, যদি আপনার কোন প্রশ্ন থাকে টেলিগ্রাম কি। টেলিগ্রাম একাউন্ট খোলার নিয়ম। তবে এ জন্য কমেন্ট করে জানাবেন।